ক্রিকেট বিশ্বকাপ ভেন্যুতে নোংরা আসনের জন্য বিসিসিআইকে নিন্দা করা হয়েছে

Home » ক্রিকেট বিশ্বকাপ ভেন্যুতে নোংরা আসনের জন্য বিসিসিআইকে নিন্দা করা হয়েছে

ক্রিকেট বিশ্বকাপ মূল ভেন্যুতে নোংরা আসনের জন্য বিসিসিআইকে নিন্দা করা হয়েছে। বিশ্বকাপ শুরুর অন্তিম পর্যায়ে বিসিসিআই এর এমন নড়বড়ে কার্যক্রমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে রীতিমত সমালোচনার বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

বিশ্বকাপ শুরুর বাকি কিছু মুহূর্ত। যেখানে বিশ্বকাপকে ঘিরে মানুষের মধ্যে উন্মাদনার কমতি ছিলনা সেখানেই যেন এক অনাকাঙ্ক্ষিত আক্ষেপ এসে সবার মনকে নাড়া দিয়ে যাচ্ছে।

ভারতে আয়োজিত বিশ্বকাপের ভেন্যু হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের একটি ছবি ভাইরাল হওয়ার পর থেকেই সমালোচনা করা হচ্ছে ভারতের বিশ্বকাপ আয়োজনকে নিয়ে। যেখানে দেখা যায় স্টেডিয়ামের চেয়ার এবং আশেপাশের পরিস্থিতি ভয়াবহ। বিশ্বকাপের মত বড় মঞ্চের খেলা এমন স্টেডিয়ামে বসে উপভোগ করতে হবে এমনটা মানতে নারাজ প্রত্যেকে। আর তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে চলছে সমালোচনার ঝড়।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ এর ভেন্যু রক্ষণাবেক্ষণের গুরুত্ব

আইসিসি ওডিআই বিশ্বকাপ ক্রিকেটার একটি বড় টুর্নামেন্ট। আজ থেকে শুরু হতে যাচ্ছে ক্রিকেটের সবচেয়ে উপভোগ্য এবং রোমাঞ্চকর এই টুর্নামেন্ট। বিশ্বকাপ শুরুর কয়েক মাস আগে থেকেই এটিকে ঘিরে পরিকল্পনা এবং উন্মাদনা চলছে। কেননা বিশ্বকাপ মানেই ক্রিকেটের বড় মঞ্চ, বড় ম্যাচ, বড় দলের মিলনমেলা।

আর তাই বিশ্বকাপের মত বড় মঞ্চে ভেন্যু রক্ষণাবেক্ষণের গুরুত্ব অনেক। যেটি পরিচালনায় ব্যর্থ হয়েছেন বিসিসিআই, এমনটাই এখন সবার মুখে মুখে আছে। এর পূর্বে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দু জুড়ে ছিল বিসিসিআই।

এবার ভেন্যু নিয়ে সমালোচনার মুখোমুখি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড।

বিশ্বকাপের ভেন্যু হবে আকর্ষণীয় এবং সুন্দর সেটাই সবার কাম্য। অনেকেই আকর্ষণীয় একটি স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখার প্রত্যাশা নিয়েই টিকেট কেটেছে উচ্চ দামে। কিন্তু হটাৎ করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া স্টেডিয়ামের ছবি দেখেই সকলের মনের কাঙ্খিত আশা ভেঙে হয়েছে।

অনেকেই কষ্টের টাকায় কেনা টিকেট নিয়ে আক্ষেপ করছেন।

তবে বিশ্বকাপের পূর্বে হায়দ্রাবাদ স্টেডিয়ামের এমন অবস্থা রক্ষণাবেক্ষণ করা হতে পারে।

হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের জরাজীর্ণ সে ছবিটি যদিও অনেক আগের ছিল।

তবে বর্তমানে এটি নিয়েই আলোচনা এবং সমালোচনার বন্যা বয়ে যাচ্ছে।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ এর পটভূমি

আইসিসি ওডিআই বিশ্বকাপ ক্রিকেট ইতিহাসের একটি ঐতিহ্যবাহী ক্রিকেট টুর্নামেন্ট। ২০২৩ মৌসুমে আয়োজিত এই ওডিআই বিশ্বকাপ হতে যাচ্ছে আইসিসির ১৩তম পর্বের খেলা। যদিও বিশ্বকাপ ২০২৩ মৌসুমের খেলা শুরু হওয়ার কথা এই বর্ষের শুরুর দিকে ছিল, তবে বিভিন্ন কারণে পিছিয়ে অক্টোবরে অনুষ্ঠিত হওয়ার তারিখ নির্দিষ্ট হয়।

আজ থেকে আইসিসি বিশ্বকাপ টুর্নামেন্ট শুরু হতে যাচ্ছে।

যেখানে উদ্বোধনী ম্যাচ হিসেবে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের খেলা দেখতে পাবে দর্শকরা।

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০২৩ মৌসুমের একমাত্র স্বাগতিক দেশ হচ্ছে ভারত।

ভারতের বিভিন্ন ভেন্যুতেই সম্পূর্ণ বিশ্বকাপের ৪৬টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হতে চলেছেন।

আইসিসি বিশ্বকাপ ২০২৩ আসরে সর্বমোট অংশ নেওয়া দলের সংখ্যা হচ্ছে দশটি।

যেখানে স্বাগতিক ভারত এবং অন্যান্য সাতটি দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পেলেও বাকি দুটি দলকে বাছাই পর্ব থেকে বিশ্বকাপ পর্যন্ত সুযোগ আদায় করে নিতে হয়েছিল।

এবারের বিশ্বকাপের একটি নজরকারা দিক হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের অনুপস্থিতি।

বিশ্বকাপের বাছাই পর্ব থেকেই বাদ পড়ে ওডিআই বিশ্বকাপ ইতিহাসের প্রথম দুটি শিরোপা জেতার রেকর্ড করা দল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

শক্তিশালী ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিশ্বকাপে অনুপস্থিতি ক্রিকেটারদের অনেকটাই ভুগিয়েছে।

অন্যদিকে বিশ্বকাপের বাছাইপর্ব টপকে বিশ্বকাপ পর্যন্ত নিজেদের কোয়ালিফাই করেছে শ্রীলঙ্কা এবং নেদারল্যান্ডস।

আইসিসি ওডিআই বিশ্বকাপে অংশ নেওয়া দশটি দলগুলো হচ্ছে, ভারত, বাংলাদেশ, পাকিস্থান, আফগানিস্থান, শ্রীলঙ্কা, সাউথ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, নেদারল্যান্ডস।

খেলাটি অনুষ্ঠিত হবে ওডিআই ফরমেটে, অর্থাৎ ৫০ ওভারে বিশ্বকাপের ম্যাচগুলো মাঠে গড়াবে।

এবারের আইসিসি বিশ্বকাপ কিছুটা ভিন্ন হতে চলেছে। কেননা অংশ নেওয়া প্রত্যেক দলগুলোকে শক্তিশালী মনে হচ্ছে এবার।

অর্থাৎ প্রত্যেকেই তাদের শক্তিশালী একাদশ নিয়ে মাঠে নামবে বিশ্বকাপের বড় মঞ্চে।

একইসাথে প্রত্যেকটি দলের একটিমাত্র স্বপ্ন এবং লক্ষ্য থাকবে বিশ্বকাপের ট্রফিকে ঘিরে।

ট্রফি ছিনিয়ে নেওয়ার এই যুদ্ধে সামিল হতে চলেছে দশটি দল।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ এর স্টেডিয়ামের নিন্দা সম্পর্কিত মূল ঘটনা

সম্প্রতি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের একটি ছবি ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেখা যাচ্ছে স্টেডিয়ামের নাজেহাল পরিস্থিতি।

স্টেডিয়ামের চেয়ারগুলো দেখে মনে হয় যেন চিরকাল ধরে এটিকে রক্ষণাবেক্ষণ কর হচ্ছে না।

এমনই করুন দৃশ্য দেখা গিয়েছে উক্ত ভাইরাল ছবির মধ্যে।

বিশ্বকাপে মত একটি বড় মঞ্চের খেলার জন্য সাধারণ দর্শকদের টাকা খরচ করে এমন স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখতে হবে এমনটা কল্পনা করে অনেকেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এটির প্রতিবাদ করেছে।

তবে সমালোচনার তীর সরাসরি গিয়ে বেধেছে বিসিসিআই এর বুকে।

সকলেই বিসিসিআই এর দায়িত্ব পালন নিয়ে প্রশ্ন তুলছেন।

যেখানে বিশ্বকাপ শুরু হতে মাত্র কিছু ঘণ্টা বাকি, সেখানে স্টেডিয়ামের এমন নাজেহাল পরিস্থিতি ক্রিকেট অনুরাগীরা মেনে নিতে পারছেন না।

তবে বিসিসিআই নিয়ে সমালোচনা কেবল এইটুকুতেই সীমাবদ্ধ নয়।

বিশ্বকাপ টিকেটের অনাকাঙ্ক্ষিত মূল্য, পাকিস্থানের ভিসা পেতে বিলম্ব হওয়া আর এখন স্টেডিয়ামের এমন নাজেহাল অবস্থা সবকিছু মিলিয়ে তুমুল সমাচনার ঝড় বইছে বিসিসিআই নামকে ঘিরে।

বিশেষ করে ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে সাধারণ মানুষ বিভিন্ন বাজে মন্তব্য করছেন এই ঘটনার জন্য।

অনেকেই রীতিমত বলে বসেছেন বিসিসিআই এর পকেটে টাকা শেষ হয়েছে কিনা, যে তারা একটি আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম রক্ষণাবেক্ষণ করতে ব্যর্থ।

সোশ্যাল মিডিয়া আক্রোশ

বিশ্বকাপের কিছু মুহূর্ত আগেই হায়দরাবাদের রাজীব গান্ধী স্টেডিয়ামের একটি ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে ভাইরাল হয়, যেটিকে ঘিরেই চলছে বিভিন্ন মন্তব্য।

সোশ্যাল মিডিয়া আক্রোশ এখন ভারতের ক্রিকেট বোর্ডকে কেন্দ্র করে। অনেকেই বলছেন বিভিন্ন কটু কথা।

বিশ্বকাপ শুরু অনেক আগে থেকেই এটির প্রস্তুতি চললেও, বিশ্বকাপ শুরু কোন দিন পর্যায়ে এসে স্টেডিয়ামের এমন পরিস্থিতি মেনে নিতে।

আর তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে সাধারণ দর্শকদের ক্ষোভ প্রকাশ পাচ্ছে প্রতিনিয়ত।

বিসিসিআই এর প্রতিক্রিয়া

স্টেডিয়ামের ছবি ভাইরাল এবং সাধারণ দর্শকদের তুমুল সমালোচনা নিয়ে এখনো মুখ খোলেননি বিসিসিআই।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বিশ্বকাপের পূর্বে স্টেডিয়ামের এমন অবস্থা নিয়ে যেখানে বিসিসিআই কে সবাই দোষারোপ করছে, সেখানেই মৌন ভূমিকায় আছে তারা। এখনও পর্যন্ত প্রেস কনফারেন্স কিংবা সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্ম কোথাও কোনো প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেনি তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *