ক্রিকেট বেটিং টিপস ৫টি – চলমান বিপিএল টুর্নামেন্টে বড় জয়ের জন্য

Home » ক্রিকেট বেটিং টিপস ৫টি – চলমান বিপিএল টুর্নামেন্টে বড় জয়ের জন্য

চলমান বিপিএল টুর্নামেন্টে বড় জয়ের জন্য ৫টি দুর্দান্ত ক্রিকেট বেটিং টিপস শেয়ার করা হবে আজকের নিবন্ধে।

বর্তমান সময়ে বেটিং জগতে অন্যতম একটি ইভেন্ট বিপিএল ২০২৪ । আর তাই বিপিএলকে কেন্দ্র করে বেটিং করার প্রবণতা অনেকটাই বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়াও বিভিন্ন বেটিং প্ল্যাটফর্মের প্রদান করা লোভনীয় সব অফার থেকে অনেকেই ঝুঁকছেন বেটিং এর দিকে। তবে আপনিও যদি বিপিএলের ম্যাচ প্রেডিকশন বাজি রেখে টাকা জেতার স্বপ্ন দেখে থাকেন, আপনার জন্য আজকের আর্টিকেলটা অনেকটাই কার্যকরী হবে।

এই পর্বে উল্লেখিত ৫টি ক্রিকেট বেটিং টিপস যদি আপনি অনুসরণ করেন তবে আপনার বেটিং জেতার সম্ভবনা অনেকটাই বৃদ্ধি পাবে। এছাড়াও আপনাদের জন্য উপহার হিসেবে থাকছে একটি বোনাস টিপস। আর তাই সম্পূর্ণ আর্টিকেলটা মনোযোগ সহকারে পড়ুন এবং বুঝুন আপনার কি করা উচিত।

বিপিএল(বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ) ২০২৪

বিপিএল টুর্নামেন্টের দশম পর্বের খেলা শুরু হয় গত ১৯ জানুয়ারি তারিখ থেকে। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স এবং ঢাকা ডমিনেটরস এর খেলার মধ্য দিয়ে শুভ সূচনা হয় টুর্নামেন্টটির। এখন পর্যন্ত এই টুর্নামেন্টে সর্বমোট ম্যাচ খেলা হয়েছে ১৬টি, যেখানে সর্বমোট ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে ৪৬টি।

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ ক্রিকেটে প্রতিবারের ন্যায় জনপ্রিয় বিদেশি খেলোয়াড়দের উপস্থিতি রয়েছে।

বিভিন্ন দেশের খেলোয়াড়দের উপস্থিতিতে জাঁকজমকভাবে চলছে বিপিএল এর মিশন।

বিপিএল ২০২৪ টুর্নামেন্টে সর্বমোট সাতটি দল অংশ নিয়েছে।

দলগুলো হলো; কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স, ফরচুন বরিশাল, রংপুর রাইডার্স, খুলনা টাইগার্স, সিলেট স্ট্রাইকার্স, চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স এবং ঢাকা ডমিনেটর।

বিপিএল টুর্নামেন্টে বড় জয়ের জন্য ৫টি ক্রিকেট বেটিং টিপস

ক্রিকেট বেটিং টিপস ১: দল এবং খেলোয়াড় গবেষণা করুন

বিপিএল টুর্নামেন্ট বেটিং করে জেতার সম্ভাবনা বৃদ্ধি করার জন্য আপনাকে অবশ্যই প্রতিটি দল এবং দলের খেলোয়াড়দের বিশ্লেষণ করে নিতে হবে। উদাহরণস্বরূপ, দুটি দলের মধ্যকার ম্যাচে আপনি একটি দলের উপর বেট প্লেস করবেন। সেক্ষেত্রে আপনার অবশ্যই দুটি দলের ব্যাপারে বিশ্লেষণ করে নেওয়া আবশ্যক। এক্ষেত্রে আপনি দলের প্রতিটি খেলোয়াড়দের শক্তিমত্তা, দুর্বলতা ইত্যাদি বিষয় বিশ্লেষণ করতে পারেন। এছাড়াও দুটি দলের কোন খেলোয়াড় বর্তমানে ভালো ফর্মে আছে সেটিই যাচাই করে নিতে হবে। সর্বোপরি প্রতিটি খেলোয়াড়দের বিগত এবং বর্তমান পারফরমেন্সের মধ্যকার বিশ্লেষণ করে আপনি বেটিং এর ব্যাপারে যেকোন সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

একটি ভালো বিশ্লেষণ আপনার বেটিং জেতার সম্ভবনা কয়েক গুণে বাড়িয়ে দেয়।

টিপস ২: পিচ এবং আবহাওয়ার অবস্থা অধ্যয়ন করুন

একটি দলের জন্য ম্যাচ ডে এর দিন পিচ এবং আবহাওয়ার অবস্থা অধ্যয়ন করা অনেকটাই জরুরি একটি বিষয়। এটির উপর নির্ভর করে দলটির টিম ম্যানেজমেন্ট প্রয়োজনীয় সিদ্ধান্ত এবং পরিকল্পনা সাজিয়ে থাকেন। আপনি যদি বিপিএল এর ম্যাচ বেটিং করতে চেয়ে থাকেন তবে অবশ্যই উক্তিদিনের আবহাওয়া সংক্রান্ত বিশ্লেষণ এবং পিচের বিগত পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করুন।

পিচ এবং আবহাওয়া সংক্রান্ত বিশ্লেষণ করার ফলে আপনি দুটি দল সম্পর্কে যৌক্তিক সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবেন।

ইন্টারনেটে সার্চ করে আপনি এই বিষয়ে বিস্তারিত জেনে নিতে পারবেন।

টিপস ৩: টিম নিউজ এবং লাইনআপের উপর নজর রাখুন

এই টিপসটি বেটিং করার পূর্বে অবশ্যই আপনার মাথায় রাখা উচিত। আপনি যদি কোন দলের উপর বেটিং করতে চান তবে সেদিনের টিম নিউজ এবং লাইনআপের উপর বিশেষ নজর দিন।

ম্যাচের একদিন পূর্বে কিনা ম্যাচের দিন বিভিন্ন ধরনের নিউজ প্রকাশ করে থাকে টিম ব্যবস্থাপনার লোকেরা।

এটি আপনাকে দলের ব্যাপারে যেকোন ধরনের তথ্য দিয়ে সাহায্য করে থাকবে।

অন্যদিকে ম্যাচ শুরুর পূর্বে অনেকভাবে ধারণা পাওয়া যায় দলের লাইনআপ কেমন হতে যাচ্ছে।

আপনাকে অবশ্যই সেটি লক্ষ রাখতে হবে।

সর্বোপরি ম্যাচের কিছু সময় পূর্বে প্রকাশ করা লাইনআপ বিশ্লেষণ করা অতীব জরুরী।

উপরের দুটি টিপস এর সাথে সমন্বয় করে এই বিশ্লেষণটি করা গুরুত্বপূর্ণ।

টিপস ৪: হেড-টু-হেড পরিসংখ্যান মূল্যায়ন করুন

দুটি দলের মধ্যকার ম্যাচ প্রেডিকশন করার ক্ষেত্রে অবশ্যই তাদের বিগত পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করা আবশ্যক। তবে এই বিশ্লেষণ এটা প্রমাণ করে না যে, যে দল পরিসংখ্যানে এগিয়ে আছে সে দল ম্যাচ জিততে চলেছে।

এটি কেবল আপনাকে সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষেত্রে একটি তথ্য দিয়ে সাহায্য করে থাকবে।

উপরে উল্লেখিত টিপসগুলোর সাথে এটির সমন্বয় আপনাকে সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়ার দিকে এগিয়ে রাখবে।

ইন্টারনেটে দুটি দলের নাম লিখে অনুসন্ধান করলে আপনি দেখতে পারবেন হেড টু হেড পরিসংখ্যানে কোন দল কতটি জয় পেয়েছে।

আপনার সুবিধার্থে আপনি পরিসংখ্যানটি নোট হিসেবে রাখতে পারেন।

টিপস ৫: বাস্তবসম্মত বাজেট সেট করুন এবং ঝুঁকিগুলি পরিচালনা করুন

আমাদের সর্বশেষ টিপস যেটি আপনাকে ঝুঁকি ব্যবস্থাপনায় সাহায্য করবে। বেটিং একটি চর্চা। অনেকেই অবসর সময়ে শখের বসে বেটিং করে থাকে। তবে টাকার লোভে পড়ে একাধিক বাজেট সেট করা এবং বেটিং করার ফলে আপনি আপনার মূল্যবান অর্থ হারিয়ে বসতে পারেন।

বাংলাদেশের অনেক নতুন লোকেরাই এভাবে অপরিকল্পিত বেটিং করে তাদের অর্থ হারিয়েছে।

আর তাই বেটিং করার পূর্বে একটু বাস্তবসম্মত বাজেট পরিকল্পনা করুন।

কিভাবে সে বাজেট কাজে লাগিয়ে বেটিং করবেন সেটি ঠিক করুন।

একইসাথে উক্তি বেটিং করার ক্ষেত্রে কোন ধরনের ঝুঁকিগত বিষয় উপলব্ধ আছে সেটি বিশ্লেষণ করুন।

এতে আপনার ঝুঁকি ব্যবস্থাপনার বিষয়টি কার্যকর হবে এবং আপনার ক্ষতির সম্ভবনা অনেকটাই কম থাকবে।

বোনাস টিপস: লাইভ বেটিং কৌশল

এই পর্যায়ে বোনাস টিপস হিসেবে থাকছে লাইভ স্ট্রিমিং। অর্থাৎ আপনি প্রথমবার বেটিং করার পূর্বে বেশি বেশি লাইভ স্ট্রিমিং করুন। বিভিন্ন বেটিং সাইটে যারা বেটিং করে থাকেন তাদের বেট প্লেস এবং জেতার লাইভ উক্ত সাইটে ফ্রীতে দেখানো হয়।

এক্ষেত্রে লাইভ স্ট্রিমিং করে আপনি লাইভে সম্পূর্ণ বেটিং প্রক্রিয়া সম্পর্কে বিস্তারিত ধারণা লাভ করতে পারবেন।

এতে আপনার বেটিং সম্পর্কে ভালো ধারণা হওয়ার পাশাপাশি আপনি সঠিকভাবে বেট প্লেস করা শিখে নিতে পারবেন।

যেহেতু এটি একটি ফ্রি প্রক্রিয়া, আপনি যেকোন বেটিং সাইটে একটি একাউন্ট তৈরি করে লাইভ স্ট্রিমিং করতে পারেন।

আজকের পর্বে আপনাদের জন্য কার্যকরী পাঁচটি ক্রিকেট বেটিং টিপস দেওয়া হলো। টিপসগুলো অনুসরণপূর্বক বেটিং করার ক্ষেত্রে আপনার জেতার সম্ভবনা এবং সঠিন বেট প্লেস করার সম্ভাবনা অনেককে বৃদ্ধি পাবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *