বাংলাদেশ মহিলা ঘরের মাঠে পাকিস্তান নারীদের বিপক্ষে সাদা বলে সিরিজ খেলবে

Home » বাংলাদেশ মহিলা ঘরের মাঠে পাকিস্তান নারীদের বিপক্ষে সাদা বলে সিরিজ খেলবে

এশিয়ান গেমসে দুদলের সাক্ষাত

বাংলাদেশ মহিলা  ক্রিকেট দল ২০২৩, এশিয়ান গেমসের ব্রোঞ্জ মেডেলের ম্যাচে সকলকে চমকে দিয়ে পাকিস্থান মহিলা দলকে হারিয়ে জিতে নিয়েছে  ব্রোঞ্জ মেডেল।

যে ম্যাচে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের শর্ণা আক্তার প্রথমে পাকিস্তানের লোয়ার-মিডল অর্ডারকে ভেঙে দেওয়ার পড়ে ব্যাট হাতেও প্রয়োজনীয় কাজটি করেছিলেন।

এটি একটি কম স্কোরিং ব্রোঞ্জ-মেডেল প্লে অফ ছিল, ৩৮.২ ওভারে ১৪ উইকেটের পতন হয়েছিল ম্যাচটিতে, অন্যদিকে ম্যাচে দুদল মিলিয়ে মোট  রান উঠেছিল ১২৯।

বাংলাদেশ মহিলা দলের কাছে মেডেলের গুরুত্ব অসীম।

কারণ যখন একই দুটি দল যখন এর আগে ফাইনালে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিল ইনচিওনে ২০১৪ সংস্করণে, পাকিস্তান চার রানে জিতেছিল (ডিএলএস পদ্ধতিতে)।

ম্যাচের স্কোর

এই ম্যাচটিতে বাংলাদেশ মহিলা দল টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নেয়।

 দুই ওভারের মধ্যে ২ উইকেটে পাকিস্থানের রান দাঁড়ায় ৬ রান এবং নবম ওভারে সেই রান হয় ৪ উইকেটে ১৮।

 মারুফা আক্তার, নাহিদা আক্তার, সানজিদা আক্তার এবং রাবেয়া খানেরা এইসময় উইকেট ভাগাভাগি করে নেয় নিজেদের মধ্যে।

সেই পাকিস্থানের হয়ে এই সময়ে একমাত্র সাদাফ শামাসই দুই অঙ্কের রানে উঠতে পেরেছিলেন।

ইনিংস শেষে পাকিস্তান মহিলা দলের বোর্ডে ছিল ৬৪ রান।

অন্যদিকে, বাংলাদেশ মহিলা দলের পক্ষে এই স্কোরটি খুব বেশি হওয়া উচিত ছিল না।

 প্রথম উইকেটেই দলের হয়ে শামীমা সুলতানা এবং সাথী রানীর ২৭ রানের মাধ্যমে তাদের মধ্যে শুরুটাও ভালোই হয়েছিল।

পাকিস্তান দলের স্কোরবোর্ডে আর কিছু রান থকলে হয়তো ম্যাচের ফলাফলও আন্য রকম হতেই পারতো।  

তবে এই ম্যাচে বাংলাদেশ সেখান থেকে সিঙ্গেলসে খেললেই তাদের লক্ষ্যে সহজেই পৌঁছতে পারতো, যেটি শোর্না খুবই ভাল করেছিলেন।

 এই পজিশনে বাংলাদেশ মহিলা ক্রিকেট দলের হয়ে শোর্না 33 বলে কোনো চার বা একটি ছক্কা ছাড়াই, অপরাজিত ১৪ রান করেন।

যা এই সময়ে বাংলাদেশ মহিলা দলের জয় জন্য সবথেকে প্রয়োজনীয় ছিলো, যা বাংলাদেশ মহিলা দশ বল বাকি থকতেই কাঙ্খিত জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায়।

ঐতিসাসিক এশিয়া কাপের জয়ের পরে বাংলাদেশে খেলতে আসছে পাকিস্থান

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) অক্টোবর-নভেম্বরে পাকিস্তান মহিলাদলের বাংলাদেশ সফর ২০২৩-এর সফরসূচী ঘোষণা করেছে।

এই দ্বিপাক্ষিক সিরিওজে তিনটি টি-টোয়েন্টি এবং তিনটি ওয়ানডে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

ওডিআই আইসিসি মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপের একটি অংশ:

  ২০ই অক্টোবর: পাকিস্তান মহিলা দল ঢাকায় এসে চট্টগ্রামে যাত্রা করবে।

২৩শে অক্টোবর: জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামে টি২০ অনুশীলন ম্যাচ (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় দুপুর ২ টায়)

২৫শে অক্টোবর: জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামে 1ম টি২০ (দিন/রাতের ম্যাচ) আন্তর্জাতিক (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় বিকেল ৪:৩০ টায়)

২৭ শে অক্টোবর: জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামে দ্বিতীয় টি২০ (দিন/রাতের ম্যাচ) আন্তর্জাতিক (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় বিকেল ৪:৩০ টায়)

২৯শে অক্টোবর: জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়াম, চট্টগ্রামে তৃতীয় টি-টোয়েন্টি (দিন/রাতের ম্যাচ) আন্তর্জাতিক (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় বিকেল ৪:৩০ টায়)

৪ই  নভেম্বর: শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুরে প্রথম ওডিআই (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় সকাল ৯:৩০ টায়)

০৭ই নভেম্বর: শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুরে দ্বিতীয় ওডিআই (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় সকাল ৯:৩০ টায়)

১০ই নভেম্বর: শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম, মিরপুরে 3য় ওডিআই (ম্যাচ শুরু হবে স্থানীয় সময় সকাল ৯:৩০ টায়)

বাংলাদেশের আসন্ন সাদা বলের সফরের জন্য নারী দল ঘোষিত পাকিস্তান মহিলা দল

 পিসিবি আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশ মহিলাদের বিপক্ষে তাদের মহিলা ক্রিকেট দলের ঘোষণা করেছে যেটি বাংলাদেশে আসন্ন সাদা বলে সফরে পাকিস্থানের প্রতিনিধিত্ব করবে।

এই অত্যন্ত প্রত্যাশিত সিরিজে আইসিসি মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২২-২৫ এর অংশ হিসাবে তিনটি একদিনের আন্তর্জাতিক (অডিআই) সহ মোট ছয়টি ম্যাচ খেলবে।

এই সফরে পাকিস্থান মহিলা জাতীয় দলের নেতৃত্ব দেবেন অভিজ্ঞ অলরাউন্ডার নিদা দার।

এছাড়া তাদের স্কোয়াডে বিসমাহ মারুফ, ডায়ানা বেগ এবং মুনিবা আলী সহ বেশ কয়েকটি পরিচিত মুখ রয়েছে।

বাংলাদেশ সফরের জন্য পাকিস্তান স্কোয়াড:

নিদা দার (অধিনায়ক), মুনিবা আলী (উইকেটরক্ষক) আলিয়া রিয়াজ, নাজিহা আলভি (উইকেটরক্ষক), গোলাম ফাতিমা, বিসমাহ মারুফ, ডায়ানা বেগ, ইরাম জাভেদ , নাশরা সুন্ধু, নাতালিয়া পারভেজ, সাদিয়া ইকবাল, উম্মে-ই-হানি, ওয়াহিদা আখতার, সাদাফ শামাস ও সিদরা আমিন

নন-ট্র্যাভেলিং রিজার্ভ: আম্বার কাইনাত, ওমাইমা সোহেল এবং সিদরা নওয়াজ (উইকেট কিপার)

বাংলাদেশ মহিলা দল

পাকিস্থান আসন্ন সফরের জন্য নিজেদের দল ঘোষনা করলেও বিসিবি এখনো এই সিরিজের জন্য বাংলাদেশ মহিলা দল সরকারিভাবে জানায়নি।

 তবে আশা করা যাচ্ছে কোনো অযাচিত সমস্যা আথবা চোট আঘাত না লাগলে তারা তাদের এশিয়ান গেমসের দলটিকে এই সিরিজে অপরিবর্তীত রাখবে।  

বাংলাদেশ মহিলা সম্ভাব্য স্কোয়াড

নিগার সুলতানা জয় (অধিনায়ক), নাহিদা আক্তার (সহ-অধিনায়ক), সাথী রানী, ফারজানা হক পিংকি, শামীমা সুলতানা, শোভনা মোস্তারি, ঝর্ণা আক্তার, রিতু মনি, লতা মণ্ডল, সুলতানা খাতুন, ফাহিমা খাতুন, রাবেয়া খান, শানজিদা আক্তার মগলা, মারুফা আক্তার, দিশা বিশ্বাস।

উপসংহার

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ইতিমধ্যে এই সিরিজের পূর্ণাঙ্গ সফরসূচী ঘোষণা করে দিয়েছে।

 এটা নিশ্চিত করা হয়েছে যে পাকিস্তান মহিলা দল ২০ই অক্টোবর বাংলাদেশে রওনা হবে। এই সফরটি তাৎপর্যপূর্ণ গুরুত্বও বহন করছে।

কারণ এই সিরিজ ওডিআই আইসিসি মহিলা চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ, যা ২০২৫ মহিলা ক্রিকেট বিশ্বকাপের যোগ্যতা নির্ধারণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।

এখন দেখার বাংলাদেশ মহিলা দল ঘরের মাঠে এশিয়ান গেমসের ফলকে ধরে রাখতে পারে, নাকি পাকিস্থান মহিলা দল এশিয়ান গেমসের মধুর প্রতিশোধ এই সিরিজে নিয়ে নেয়! 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *