বাংলাদেশ স্কোয়াড আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য কি শক্তিশালী?

Home » বাংলাদেশ স্কোয়াড আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য কি শক্তিশালী?

বাংলাদেশ স্কোয়াড ঘোষণা করা হয়েছে আসন্ন ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য। ১৪মে, মঙ্গলবার ২০২৪  মিরপুরে ১৫ সদস্যের এই স্কোয়াড ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচক গাজী আশরাফ হোসেন লিপু।

বিশ্বকাপে বাংলাদেশ স্কোয়াডে নাজমুল হোসেন শান্ত অধিনায়ক থাকবেন, এ ছাড়া এই বিশ্বকাপে সহ-অধিনায়কের দায়িত্ব পালন করবেন পেসার তাসকিন আহমেদ।

বাংলাদেশ স্কোয়াড নিয়ে কঠোর সমালোচনা

দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর বাংলাদেশের বিশ্বকাপ স্কোয়াড ঘোষণা হয়েছে ঠিকই। কিন্তু দল ঘোষণার পরপরই শুরু হয়েছে কঠোর সমালোচনা।

কারণ ২০২৪ টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেট প্রতিযোগিতা অংশগ্রহণকারী সব দেশই চেষ্টা করেছে, বিশ্বকাপে সেরা দলটি পাঠাতে। কিন্তু বাংলাদেশ স্কোয়াডে এর  ব্যতিক্রম দেখা যায়।

বাংলাদেশ স্কোয়াডে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেই

মুশফিক জাতীয় দলের হয়ে ১০২টি টি-টোয়েন্টিতে অংশ গ্রহণ করে  ১৫০০ রান করেছেন, সর্বোচ্চ স্কোর অপরাজিত ৭২, উইকেটের পেছনে থেকে ক্যাচ লুফেছেন ৪২টি, স্ট্যাম্পিং করেছেন ৩০টি তার নাম নেই বাংলাদেশ স্কোয়াডে । 

বর্তমানে দলের অতি গুরুত্বপূর্ণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজকে নিয়ে শেষ মুহূর্তে গুঞ্জন থাকলেও দলে তারও জায়গা হয়নি।

মিরাজ ২০২৩ সালে শেষ বারের মতো জাতীয় টি-টোয়েন্ট দলে খেলেছেন। ওই বছরই  মিরাজের অলরাউন্ড নৈপূণ্যের সুবাদে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মিরপুরে এক টি-টোয়েন্টি ম্যাচে বাংলাদেশ ৪ উইকেটে জয়লাভ করেছিল।

ম্যাচে তিনি ৪ ওভারে মাত্র ১২ রানে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের ৪ ব্যাটারকে ফিরিয়ে দেন, আর ব্যাট হাতে ১৬ বলে ২০ রান,করে হন ম্যান অফ দি ম্যাচ।

সাইফউদ্দিন জাতীয় টি-টোয়েন্টি দলে খেলেছেন ২৯ ম্যাচ। করেছেন ১৯৬ রান, সর্বোচ্চ সংগ্রহ অপরাজিত ৩৯ রান, বল হাতে উইকেট নিয়েছেন ৩১টি।

এই বছর  জিম্বাবুয়ে সিরিজে বল হাতে অসাধারণ নৈপূণ্য দেখিয়েছেন। অনেকদিন পর জাতীয় দলে ফিরে ৪ ম্যাচে ৮ উইকেট নিয়ে সিরিজে সর্বোচ্চ উইকেট শিকার করলেও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন নির্বাচকদের আস্থা অর্জন করতে পারেননি দল থেকে বাদ পড়েছেন তিনি। এমনকি রিজার্ভেও রাখা হয়নি তাকে।

তামিম ইকবাল সর্বশেষ বিপিএলেই সর্বাধিক রান করেছেন। তাছাড়া, জাতীয় দলের হয়ে ৭৮ ম্যাচে একটি অপরাজিত সেঞ্চুরি সহ করেছেন ১৭৫৮ রান। তাকে বাংলাদেশ স্কোয়াডে রাখা হয়নি।

বাংলাদেশ স্কোয়াডে  ইনজুরি, টানা অফ ফর্ম এবং নতুনদের কদর

তাসকিন দলের সহঅধিনায়ক হিসেবে যাচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রে টাইগারদের বিশ্বকাপের পারফরম্যান্সের ক্ষেত্রে তাসকিনের ইনজুরি বড় একটা কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ।

আর তাসকিনের এ ইনজুরি টাইগারদের কতটা ভোগাবে সেটি এখন বড় প্রশ্ন হয়ে দাঁড়িয়েছে। আবার টানা অফ ফর্মে থাকা লিটন দাসকেও নেওয়া হয়েছে দলে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড যে দল ঘোষণা করেছে তার মধ্যে বেশ কয়েকটি নতুন মুখ রয়েছে যারা এর পূর্বে কোনো বিশ্বকাপেই অংশগ্রহণ করেনি।

বাংলাদেশ স্কোয়াডে টপ অর্ডার ব্যাটারদের পারফরম্যান্স নিয়েও সংশয়

সদ্য শেষ হওয়া জিম্বাবুয়ের সঙ্গে দলের যে পারফরম্যান্স সেটির পর বাংলাদেশ বিশ্বকাপে কোনোভাবে প্রথম রাউন্ড পার করতে পারবে কি না- তা নিয়েও সংশয় রয়েছে।

টপ অর্ডার ব্যাটারদের সম্প্রতি যে পারফরম্যান্স তা নিয়ে ভক্ত-সমর্থকদের মনে সন্দেহ আরো তীব্র হয়েছে।

সম্প্রতি জিম্বাবুয়ের সঙ্গে ঘরের মাঠে টাইগারদের পারফরম্যান্স বিবেচনা করলে দেখা যায়, টপ অর্ডারে একমাত্র তানজিদ তামিম ছাড়া কেউই সেভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি।

পুরো সিরিজে দুয়েক জন ব্যাটস ম্যান ছাড়া কারোরই স্ট্রাইক রেট ১৩০ ছাড়িয়ে যেতে পারেনি।

আর চার-ছক্কার এ টুর্নামেন্টে এমন স্ট্রাইক রেট নিয়ে বাংলাদেশ কতদূর এগোতে পারবে সেটি একটি বড় চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪ :

নাম
নাজমুল হোসেন শান্তজাকের আলী অনিক
তাসকিন আহমেদরিশাদ হোসেন
লিটন কুমার দাসশেখ মাহেদী হাসান
সৌম্য সরকারতানজিম হাসান সাকিব
তানজিদ হাসান তামিমমোস্তাফিজুর রহমান
সাকিব আল হাসানশরিফুল ইসলাম
তৌহিদ হৃদিতানভীর ইসলাম
মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ 

রিজার্ভ: হাসান মাহমুদ, আফিফ হোসেন।

এদিকে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে যাচ্ছেন রিশাদ হোসেন, জাকের আলী, তানজিদ হাসান তামিম, তানজিম হাসান সাকিব, তানভীর ইসলাম ও তাওহীদ হৃদয়।  

টপ অর্ডারের দায়িত্বে থাকবেন সৌম্য সরকার, তানজিদ হাসান তামিম, সাকিব আল হাসান ও অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

মিডল অর্ডারের দায়িত্বে থাকবেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াজ, জাকির আলী অনিক ও তৌহিদ হৃদি। স্পিনার হিসেবে আছেন রিশাদ হোসেন, শেখ মাহদি, তানভীর ইসলাম।

পেসারদের মধ্যে মুস্তাফিজ, তাসকিন ও শরিফুল। ব্যাকআপ ওপেনার হিসেবে থাকছেন লিটন দাস।

বাংলাদেশ স্কোয়াডে পরিবর্তন করার  সুযোগ আছে

কোন কারণ ছাড়াই ২৫ মে’র মধ্যে বাংলাদেশ স্কোয়াডে স্কোয়াডেও পরিবর্তনের সুযোগ রয়েছে। আইসিসির অনুমোদন নিয়ে এ সময়ের পরও পরিবর্তন করা যাবে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড খেলবে  ‘ডি’ গ্রুপে

বিশ্বকাপে কঠিন ‘ডি’ গ্রুপে পড়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলঙ্কা যারা আইসিসির পূর্ণ সদস্য ।

সেই সঙ্গে সহযোগী সদস্য নেদারল্যান্ডস ও নেপাল বাংলাদেশের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবে। বাংলাদেশের প্রথম ম্যাচ ডালাসের গ্র্যান্ড প্রেইরি স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে।

দ্বিতীয় ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে নিউ ইয়র্কের নাসাউ কাউন্টি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে। পরের দুই ম্যাচ সেন্ট ভিনসেন্টে নেদারল্যান্ডস ও নেপালের বিপক্ষে।

বাংলাদেশ স্কোয়াড টি-২০ বিশ্বকাপের পথে বুধবার মধ্যরাতে ঢাকা ছেড়েছে

টি-২০ বিশ্বকাপে ভালো কিছু করার স্বপ্ন নিয়ে বুধবার মধ্যরাতে ঢাকা ছেড়েছে বাংলাদেশ স্কোয়াড।

ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স নিয়ে দুশ্চিন্তা থাকলেও দলের প্রস্তুতি নিয়ে সন্তুষ্ট টাইগার হেড কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহ ।

তিনি বলেন, ‘আমাদের প্রস্তুতি খুব ভালো। আমাদের চট্টগ্রামে ভালো ক্যাম্প হয়েছে। আমাদের জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে পাঁচ ম্যাচের টি-টেয়েন্টি সিরিজ হয়েছে।

এই ম্যাচগুলোতে আমরা সুযোগ দিয়েছি বেশিরভাগ খেলোয়াড়কে। আমরা কিছু জায়গা এক্সপোজ করছি।

কিছু ব্যক্তিগত পারফরম্যান্স নিয়ে চিন্তার জায়গা আছে, তবে এর বাইরে আমাদের প্রস্তুতি বেশ ভালো।’

টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটে এমনিতেই বাংলাদেশ ভালো দল নয়। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আট আসর হয়েছে এর আগে।

কোনোটিতেই সেভাবে স্মরণীয় পারফরম্যান্স নেই। এবার ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও যুক্তরাষ্ট্রের বিশ্বকাপে কি আগের সবগুলোকে ছাড়িয়ে যেতে পারবে বাংলাদেশ?

হেড কোচের উত্তর, ‘হ্যাঁ, প্রতিটা টুর্নামেন্টে আমাদের আগের চেয়ে ভালো করার সুযোগ আছে। হ্যাঁ, টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জের।

কিন্তু আমাদের যে প্রস্তুতি, সে  হিসাবে বলতে পারি— আগের চেয়ে ভালো করার সুযোগ আছে।’

বাংলাদেশের এই দল বিশ্বকাপে খুব একটা ভালো পারফরম্যান্স করতে পারবে কি না- তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। সব মিলিয়ে এই স্কোয়াড নিয়ে টাইগাররা কেমন করবে সেটিই এখন দেখার বিষয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *