ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: নির্মম ভারত বনাম আন্ডারডগ দক্ষিণ আফ্রিকা

Home » ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: নির্মম ভারত বনাম আন্ডারডগ দক্ষিণ আফ্রিকা

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও ক্যারিবিয়ানে এক মাসব্যাপী উত্তেজনাপূর্ণ টুর্নামেন্টের সমাপ্তি ঘটবে এই ম্যাচের মাধ্যমেই। শনিবারের লড়াই অবশ্যই মনে রাখার মতো হবে, যেখানে অপরাজিত ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা আইসিসি পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ২০২৪ -এর শিরোপা নিজেদের করে নিতে লড়াই করবে।

কেনসিংটন ওভালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালে ঐতিহাসিক জয়ের জন্য উভয় দলই অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করছে।

এক টুর্নামেন্ট যা ছিল মান, বিনোদন ও উপস্থিতির মিশ্রণ, তার যোগ্য সমাপ্তি হিসেবে দাঁড়াবে এই ফাইনাল। সংক্ষিপ্ততম ফর্ম্যাটে লড়াই করবে দুটি সেরা দল।

বৃহস্পতিবার গায়ানায় ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে ৬৮ রানে পরাজিত করে ভারত। এর আগের দিন ত্রিনিদাদে দক্ষিণ আফ্রিকা নয় উইকেটে হারিয়েছিল আফগানিস্তানকে।

ট্রফিটি পুনরুদ্ধার করতে চায় ভারত, যা তারা শেষবার জিতেছিল ২০০৭  সালের উদ্বোধনী সংস্করণে।

অন্যদিকে, দক্ষিণ আফ্রিকা প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠেছে। আগের সাতটি বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে সব ফরম্যাটে পরাজিত হওয়ার পর এবার তাদের ভাগ্য কেমন হবে?

শনিবারের ম্যাচ উত্তর দেবে সব প্রশ্নের। কে উঠবে চ্যাম্পিয়নের সিংহাসনে? নির্দয় ভারত? নাকি অনন্য যোদ্ধা দক্ষিণ আফ্রিকা?

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: ম্যাচের বিস্তারিত

সিরিজঃ আইসিসি পুরুষদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ, ২০২৪

ম্যাচঃ ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা,

ভেন্যুঃ কেনসিংটন ওভাল, ব্রিজটাউন, বার্বাডোস

তারিখঃ ২৯ জুন

বারঃ শনিবার

রিজার্ভ ডেঃ ৩০জুন রবিবার ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা ফাইনালের জন্য রিজার্ভ ডে

 ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা – হেড টু হেড তুলনা

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মঞ্চে দুই দলই ২৬ বার মুখোমুখি হয়েছে। আফ্রিকা জিতেছে ১১ বার, ভারত জিতেছে ১৪ বার।

এক্ষেত্রে দেখা যায়, দুটি দলই পরিসংখ্যানের ভিত্তিতে এগিয়ে রয়েছে কেউ করো থেকে পিছিয়ে নেই।

আসন্ন বিশ্বকাপে ভারত এবং দক্ষিণ আফ্রিকার  মধ্যে একটি প্রতিদ্বন্দ্বিতা দেখা যেতে পারে।

গত ১ বছরের সেরা পারফর্মার

খেলার মাঠে গত ১ বছরের ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার সেরা পারফর্মারদের পারফরমেন্সের উপর থাকবে বিশেষ নজর।

দক্ষিণ আফ্রিকাঃ ব্যাটিং রেজা হেনড্রিক্স ৩৯৪ রান ,বোলিং তাবরেজ শামসি ১৫ উইকেট।

ভারতঃ ব্যাটিং সূর্যকুমার যাদব ৬৬২রান,  বোলিং আরশদীপ সিং ৩৬ উইকেট

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: কীভাবে তারা টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ ফাইনালে পৌঁছেছে?

ভারত:

লডারহিলে কানাডার বিপক্ষে বৃষ্টি-বিঘ্নিত ম্যাচ ড্র হয়েছিল, যেখান থেকে তারা মাত্র ১ পয়েন্ট পেয়েছিল।

এরপর তারা গ্রুপ পর্বে প্রতিটি ম্যাচ জিতেছে – বাংলাদেশ, আফগানিস্তান এবং অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে চিত্তাকর্ষক জয়।

সুপার এইটে গ্রুপ ১-এর শীর্ষে থেকে নকআউট পর্বে উঠে।সেমিফাইনালে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন ইংল্যান্ডকে ৭ উইকেটে পরাজিত করে।

দক্ষিণ আফ্রিকা:

টুর্নামেন্টে তাদের একটি নিখুঁত রেকর্ড রয়েছে, কিন্তু বেশ কয়েকটি ম্যাচে তাদের কঠিন লড়াই করতে হয়েছে।

গ্রুপ পর্বে নেদারল্যান্ডস, বাংলাদেশ এবং নেপালের বিরুদ্ধে কাছাকাছি জয় পেয়েছিল।

সুপার এইটে ইংল্যান্ড এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে সংকীর্ণ জয়।তবে, সেমিফাইনালে আফগানিস্তানকে ৯ উইকেটে পরাজিত করে ।

উল্লেখযোগ্য বিষয়:

  • ভারত টুর্নামেন্ট জুড়ে অপরাজিত।
  • দক্ষিণ আফ্রিকা গ্রুপ পর্ব এবং সুপার এইটে শীর্ষস্থানীয় দল ছিল না, তবে নকআউট পর্বে তারা দুর্দান্ত ফর্মে ফিরে আসে।
  • এটি T20 বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবার যেখানে দুটি অপরাজিত দল ফাইনালে মুখোমুখি হবে।

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: স্কোয়াডস

ভারত:

রোহিত শর্মা (সি), হার্দিক পান্ড্য, যশস্বী জয়সওয়াল, বিরাট কোহলি, সূর্যকুমার যাদব, ঋষভ পান্ত, সঞ্জু স্যামসন, শিবম দুবে, রবীন্দ্র জাদেজা, অক্ষর প্যাটেল, কুলদীপ যাদব, যুজবেন্দ্র চাহাল, আরশদীপ সিং, জাসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ সিরাজ

দক্ষিণ আফ্রিকা:

এইডেন মার্করাম (সি), অটনিয়েল বার্টম্যান, জেরাল্ড কোয়েটজি, কুইন্টন ডি কক, বজর্ন ফরচুইন, রিজা হেনড্রিকস, মার্কো জানসেন, হেনরিখ ক্লাসেন, কেশব মহারাজ, ডেভিড মিলার, অ্যানরিখ নর্টজে, কাগিসো রাবাদা, রায়ান রিকেল্টন,তাবরেজ শামসি,ট্রিস্টান স্টাবস

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: আবহাওয়ার পূর্বাভাস

২৯ জুন শনিবার ব্রিজটাউন, বার্বাডোসের জন্য সর্বশেষ আবহাওয়া পূর্বাভাসে বৃষ্টি এবং বজ্রবৃষ্টি সহ মেঘলা আকাশের পূর্বাভাস দেয়।

বৃষ্টি কি বার্বাডোসে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা T20 বিশ্বকাপ ২০২৪ ফাইনালকে প্রভাবিত করবে?

ভারত এবং ইংল্যান্ডের মধ্যকার সেমিফাইনালের ম্যাচটি বৃষ্টিতে ধুয়ে ফেলবে বলে প্রায় নিশ্চিত মনে হয়েছিল।

কিন্তু সৌভাগ্যবশত, ভক্তরা একটি রোমাঞ্চকর প্রতিযোগিতার সাক্ষী হতে পেরেছিলেন।

দেখা যাক বার্বাডোসে ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনাল ম্যাচে বৃষ্টি প্রভাব ফেলবে কিনা।

 ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা: দলের বিশ্লেষণ

ভারত:

রোহিত শর্মা এবং বিরাট কোহলির নেতৃত্বে শক্তিশালী টপ অর্ডার।

সূর্যকুমার যাদব এবং হার্দিক পান্ড্যের মতো আক্রমণাত্মক ব্যাটসম্যানদের দ্বারা শক্তিশালী মিডল অর্ডার।

জসপ্রিত বুমরাহ এবং অক্ষর পটেলের নেতৃত্বে বৈচিত্র্যপূর্ণ বোলিংআক্রমণ।

সামগ্রিকভাবে অভিজ্ঞতা এবং যুবশক্তির ভালো মিশ্রণ, যেকোনো পরিস্থিতিতে জয়ের জন্য প্রস্তুত।

দক্ষিণ আফ্রিকা:

এইডেন মার্করাম, কুইন্টন ডি ককের উপর নির্ভরশীল ব্যাটিং।

মিডল অর্ডারে  হেনরিখ ক্লাসেন স্থিতিশীলতা প্রদান করবেন।

বোলিংয়েকাগিসো রাবাদার নেতৃত্বাধীন শক্তিশালী আক্রমণ।

সামগ্রিকভাবেকৌশলগত নেতৃত্বের উপর নির্ভর করে অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের উপর বেশি নির্ভরশীল।

ভারত বনাম দক্ষিণ আফ্রিকা:ভক্তদের প্রত্যাশা

ভক্তরা উভয় দলের কাছ থেকেই দুর্দান্ত পারফরম্যান্সের আশা করছেন।

ভারতীয় ভক্তরা ২০১৩সাল থেকে চলমান ট্রফির খরার অবসান ঘটাতে উদ্বিগ্ন। তারা তাদের তারকা খেলোয়াড়দের এই মঞ্চে উঠে আসতে এবং চ্যাম্পিয়নশিপ জয়ের যোগ্য পারফরম্যান্স দিতে আশা করছেন।

ভারতীয় দলের ব্যাটিং এবং বোলিং উভয় ক্ষেত্রেই, তাদের সমর্থকদের মধ্যে আত্মবিশ্বাস জাগিয়েছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার সমর্থকরাও কম উত্তেজিত নন। তারা তাদের দলের প্রথম T20 বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের জন্য আশাবাদী।

তারা বিশ্বাস করে যে তাদের দল চাপের মধ্যে ভালো পারফর্ম করতে পারে, যা তারা টুর্নামেন্ট জুড়ে প্রমাণ করেছে।

এটি নিশ্চিতভাবেই একটি কঠিন এবং উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ হবে। উভয় দলই জয়ের জন্য প্রস্তুত, এবং ভক্তরা একটি স্মরণীয় ম্যাচের জন্য আশা করছেন।

কে জিতবে শিরোপা? মতভেদ এবং ভবিষ্যদ্বাণী

দুই দলই শক্তিশালী এবং ভালো ফর্মে থাকায় ম্যাচটি খুবই কঠিন হবে।

ভারতের ব্যাটিং লাইনআপ দক্ষিণ আফ্রিকার চেয়ে সামান্য শক্তিশালী বলে মনে হচ্ছে, তবে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলিং আক্রমণ তাদের দিনটি বদলে দিতে পারে।

আমি মনে করি ভারতের ৫৫% সম্ভাবনা রয়েছে জয়ের, দক্ষিণ আফ্রিকার ৪৫% সম্ভাবনা রয়েছে।

মনে রাখবেন, ক্রিকেট একটি অনির্দেশ্য খেলা, এবং যেকোনো দল যেকোনো দিন জিততে পারে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *