মাথিশা পাথিরানা রংপুর রাইডার্সে যোগ দিলেন

Home » মাথিশা পাথিরানা রংপুর রাইডার্সে যোগ দিলেন

আগামী বছর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে খেলতে দেখা যাবে শ্রীলংকার বোলার মাথিশা পাথিরানা কে। রংপুর রাইডার্সের হয়ে খেলবেন তিনি।

রংপুর রাইডার্সের হাত ধরেই আগামী বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে অভিষেক ঘটতে চলেছে শ্রীলংকা টিমের এই তরুন তুর্কির।

2024 সালে বিপিএলের দশ বছর পূর্ণ হতে চলেছে। আগামী সিজনের জন্য এখন থেকেই  গুছিয়ে প্রস্তুতি নিচ্ছে রংপুর রাইডার্স।

রংপুর রাইডার্স শেষ কাপ জিতেছিল 2017 সালে। মালিকানা বদলের পর এবছর আবার ঢেলে নিজেদের টিম সাজাচ্ছে তাঁরা।

কেমন হয়েছে আগামী বিপিএলের টিম?

বাংলাদেশ টিমের তিন ফরম্যাটের ক্যাপ্টেন শাকিব উল হাসান, পাকিস্তানের ক্যাপ্টেন বাবর আজম ও যোগ দিয়েছেন রংপুর রাইডার্সে।

রংপুর রাইডার্সের এই খেলোয়াড় তালিকায় নবতম সংযোজন মাথিশা পাথিরানা। ক্রিকেট মহল তাঁকে চেনে ‘বেবি মালিঙ্গা’ হিসেবেই।

বছর কুড়ির এই  সিংহলি বোলারের মধ্যে অভিজ্ঞরা তাঁরই দেশের কিংবদন্তি বোলার লাসিথ মালিঙ্গার ছাপ দেখতে পান।

মালিঙ্গাকে অনুসরণ করেই নিজের বোলিং আক্রমণ সাজিয়েছেন বেবি মালিঙ্গা। এই বিশ্বখ্যাত বোলিংয়ের ওপরই বাজি ধরতে চলেছে রংপুর রাইডার্স।

দলে পাথিরানার যোগ দেওয়ার খবর জানিয়ে রংপুর রাইডার্সের তরফে পোস্ট করা হয়, ‘বেবি মালিঙ্গা মাথিশা পাথিরানা এখন রাইডার’।

আগামী বছর রংপুর রাইডার্স কে নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশের জাতীয় দলের ক্যাপ্টেন শাকিব উল হাসানই। তাঁর অধিনায়কত্বেই খেলবেন পাথিরানা।

পুরোনোদের মধ্যে নিকোলাস পূরন, ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গা, নুরুল হাসান সোহন, মেহেদী হাসান ও হাসান মাহমুদকে ধরে রেখেছে রংপুর রাইডার্স।

2021-22 এ বিপিএলে খেলেনি রংপুর রাইডার্স. লীগকর্তাদের সাথে চুক্তিপত্র নিয়ে মনোমালিন্যের কারণে দুবছর এই লীগ থেকে দূরে ছিল।

এবছর অর্থাৎ 2023 থেকেই আবার বিপিএলে খেলতে দেখা যাচ্ছে রংপুর রাইডার্সকে। পরের বছর আরো শক্তিশালী টিম নিয়ে নামতে চলেছে তাঁরা।

পাকিস্তান- বাংলাদেশের ক্যাপ্টেনদের পাশাপাশি শ্রীলংকার উঠতি বোলার পাথরানাকে দলে নেওয়ায় রংপুর রাইডার্স কে নিয়ে আশাবাদী সমর্থকরা।

কে এই মাথিশা পাথিরানা ?

এই বয়সেই ফ্রাঞ্চাইজি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে উজ্জ্বল নাম পাথিরানা। দেশের হয়ে খেলার আগেই আইপিএলে অভিষেক ঘটে তাঁর।

যদি ও 2020 এর অনুর্দ্ধ-19 বিশ্বকাপের শ্রীলংকা টিমে ছিলেন পাথিরানা। দুবছর পর চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে তাঁর ফার্স্ট ক্লাস ক্রিকেটে অভিষেক হয়।

2022 এ গুজরাট টাইটানের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ খেলেন পাথিরানা। 2023 এ চেন্নাইয়ের আইপিএল জয়ের পেছনে বড়ো ভূমিকা ছিল তাঁর।

সিএসকের হয়ে খেলার পরই  ফ্রাঞ্চাইজি ক্রিকেট লীগের দুনিয়ায় পাথিরানার চাহিদা বেড়ে যায়। শ্রীলংকা ছাড়াও আরো তিনটি দেশের  ক্লাবে খেলেন তিনি।

আইপিএলে সিএসকে, এলপিএলে ক্যান্ডি ফ্যালকনস ও কলম্বো স্ট্রাইকার্স এবং আইলিট20 তে ডেসার্ট ভাইপার্সের হয়ে খেলেছেন তিনি। নতুন সংযোজন রংপুর রাইডার্স।

রংপুর রাইডার্সের হয়ে বিপিএলে খেলার চুক্তি তাঁর এই ঝকঝকে টি-টোয়েন্টি কেরিয়ারে নতুন পালক যোগ করলো।

ডেথ ওভারে তাঁর বোলিং যে কোনো বিপক্ষের কাছেই ভয়ের কারণ। তাঁর ইয়র্কার যে কোনো দলের কাছেই সম্পদ।

আশা করা যায়, বর্তমান সিএসকের মতো ভবিষ্যতে রংপুর রাইডার্সের  ও অন্যতম শক্তি হয়ে উঠবেন শ্রীলংকার এই ফাস্ট বোলার।

শোনা যাচ্ছে, আগামী বছর বিপিএল ও আইলিট20 হয়তো একই সময়ে হতে পারে. সেক্ষেত্রে শুরু থেকেই পাথিরানাকে রংপুর রাইডার্স পাবে না।

সংযুক্ত আরব আমিরশাহীর ডেজার্ট ভাইপার্সের হয়ে খেলা শেষ হওয়ার পরই রংপুর রাইডার্সের ম্যাচে যোগ দিতে পারবেন এই বোলার।

কবে হতে পারে আগামী বিপিএল?

এদিকে শোনা যাচ্ছে যে বাংলাদেশের জাতীয় নির্বাচনের পর আগামী বছরের গোড়ার দিকে শুরু  হতে পারে বিপিএল।

সেপ্টেম্বরের শেষ সপ্তাহ পর্যন্ত ক্রিকেটারদের নিতে পারবে দলগুলো। এখনো পর্যন্ত খাতায়কলমে এবছরের সেরা চুক্তিগুলো রংপুর রাইডার্সই করেছে।

2012 সালে শুরু হওয়া বাংলাদেশের এই ক্লাব লীগের দ্বিতীয় সিজন থেকে খেলছে রংপুর রাইডার্স। এখনো পর্যন্ত 2017তে একবার মাত্র কাপ জিতেছে তাঁরা।

2020 এর পর মাঝের দুবছর বাদ দিয়ে গতবছর থেকে আবার বিপিএলে খেলছে রংপুর রাইডার্স।

কে কে আছেন পরের বারের রংপুর রাইডার্সে?

এখনো পর্যন্ত তাঁদের টিম দেখে মনে হচ্ছে, আগামী বিপিএলে কাপের অন্যতম দাবিদার হতে চলেছে রংপুর রাইডার্স।

রংপুর রাইডার্সের মালিকানা বারবার পাল্টালে ও টিম বেশিবার বদলায়নি। পরের বছর ও তাঁদের বহু পুরোনো প্লেয়ারকেই আবার দেখা যাবে।

রংপুর রাইডার্সে পাথিরানার সাথে সাথে বোলিংয়ে থাকবেন বাংলাদেশের হাসান মাহমুদ ও পাকিস্তানের ইহ্সানুল্লাহ। তিনজনই বাঁ-হাতি ফাস্ট বোলার।

পাথিরানা ছাড়া ও শ্রীলংকার অলরাউন্ডার হাসারাঙ্গা ও থাকবেন রংপুর রাইডার্সে। তিনি অবশ্য এই টিমের পুরোনো প্লেয়ার।

নেতৃত্ব না দিলে ও রংপুর রাইডার্সের হয়েই পরের বছর ও খেলবেন নুরুল হাসান. টিমের কোচিংয়ের এর দায়িত্বে আছেন সোহেল ইসলাম।

কতোটা ভরসা করা উচিত মাথিশা পাথিরানা এর ওপর?

চলতি এশিয়া কাপে ও নিজের সেরা ফর্মে আছেন মাথিশা পাথিরানা। পাঁচ ম্যাচে 11টি উইকেট নিয়েছেন তিনি।

এবারের টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ উইকেট নেওয়ার রেকর্ড এখনো পাথিরানার কাছেই। বিশ্বকাপে ও তাঁকে নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী শ্রীলংকা।

বেবি মালিঙ্গার স্লিং আর্ম অ্যাকশন আগামী বিপিএলে রংপুর রাইডার্সকে কতোটা সাহায্য করে, এখন সেটাই দেখার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *