সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে রজনীকান্ত ভালো খেলোয়াড়দের জন্য বিনিয়োগ করার আহ্বান জানিয়েছেন

Home » সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে রজনীকান্ত ভালো খেলোয়াড়দের জন্য বিনিয়োগ করার আহ্বান জানিয়েছেন

রজনীকান্ত সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে ভালো খেলোয়াড়দের জন্য বিনিয়োগ করার আহ্বান জানিয়েছেন। জনপ্রিয় অভিনেতা রজনীকান্ত এর হায়দ্রাবাদকে এমন আহ্বান জানানোর জন্য রীতিমত অনেকেই বেশ অবাক হয়েছেন। আইপিএল ক্রিকেটে হায়দরাবাদের সম্পর্কে এবং রজনীকান্তের ব্যাপারে বিস্তারিত থাকছে আজকের পর্বে।

আইপিএল টুর্নামেন্টে একসময় শক্তিশালী দলগুলোর মধ্যে একটি ছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ দল। ২০১৬ সাল থেকে ২০২০ সাল পর্যন্ত তারা একটানা প্লে অফ পর্যন্ত নিজেদের কোয়ালিফাই করতে সক্ষম হয়েছিল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ। কিন্তু শেষ তিনবছর ধরে আইপিএলে খুবই বাজে সময় পার করছে হায়দরাবাদ দল। এছাড়াও সবশেষ আইপিএল মৌসুমে ১৪টি ম্যাচ খেলে মাত্র ৪ ম্যাচে জয় পেয়েছে তারা। পয়েন্ট টেবিলে সবার শেষে থেকে আইপিএল ২০২৩ মৌসুমের খেলা শেষ করেছে তারা।

ফলে আইপিএল মৌসুমের সবচেয়ে বাজে পারফরম্যান্স করা দল হিসেবে পরিচিতি পেয়েছে হায়দরাবাদ। দলের এমন হারগুলো অনেকটাই কাছে থেকে দেখেছেন হায়দরাবাদ দলের মালিক কাব্য মারান। দলের হারে অনেকটাই হতাশ অবস্থায় তাকে গ্যালারিতে দেখা যায়। কাব্য মারানের গ্যালারিতে এরকম হতাশ অবস্থা দেখে রীতিমত মন্তব্য করে বসেন ভারতের জনপ্রিয় সুপারস্টার রজনীকান্ত। যদিও তিনি আইপিএল ক্রিকেটে চেন্নাই সুপার কিংসকে সমর্থন করে থাকেন। কিন্তু কাব্য মারানের এই অবস্থা দেখে তিনি দলে ভালো খেলোয়াড়দের কেনার পেছনে আহ্বান জানান।

রজনীকান্তের মন্তব্য ছিল অনেকটা এমন “কাব্য মারানের বাবা কালনিথি মারানের দল সানরাইজার্স হায়দরাবাদ, যেটি ভালো খেলোয়াড়দের দিয়েই বানানো উচিত। আমি খুবই খারাপ অনুভব করি যখন কাব্যকে টিভিতে হতাশ মুখে বসে থাকতে দেখি। হায়দরাবাদ দলের উচিত ভালো খেলোয়াড়দের পেছনে বিনিয়োগ করা।”

রজনীকান্তের ক্রিকেটের সাথে সম্পর্ক

রজনীকান্ত এর সাথে ক্রিকেটের তেমন কোনো বিশেষ সম্পর্ক নেই। তবে তিনি ক্রিকেট ভালোবাসেন। ভারতের অনেক ম্যাচ তিনি নিজে উপস্থিত থেকে দেখেছেন।

ক্রিকেট সম্পর্কে তার মধ্যে একটি আলাদা আবেগ রয়েছে, যেটা তিনি বারবার প্রকাশ করেছেন মিডিয়ায়।

তবে আইপিএল ক্রিকেটে তিনি কোন দল সাপোর্ট করেন এই নিয়ে নিশ্চই দর্শকদের মনে প্রশ্ন থাকবে।

রজনীকান্ত যেহেতু চেন্নাইয়ের মানুষ, তাই আইপিএল ক্রিকেটেও তিনি চেন্নাই সুপার কিংসকে সাপোর্ট করে থাকেন।

তিনি নিজের হাজারো ব্যস্ততার মাঝে সময় বের করে চেন্নাইয়ের খেলা উপভোগ করে থাকেন।

কেননা, ক্রিকেট নিয়ে এই মানুষটার আছে বিশেষ অনুভূতি।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ এর পারফরম্যান্স এবং চ্যালেঞ্জ

আইপিএল ইতিহাসের সবচেয়ে সফল দলের ব্যাপারে বলতে গেলে প্রথমে নাম আসে চেন্নাই সুপার কিংস এবং মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স এর। দুটি দল এখন পর্যন্ত শিরোপা জিতেছে পাঁচটি করে।

আইপিএল ইতিহাসের পরবর্তী সফল দল হচ্ছে কলকাতা নাইট রাইডার্স, যারা দুইবার শিরোপা জিতেছে।

অন্যদিকে রাজস্থান রয়্যালস, গুজরাট টাইটানস, সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের তারা একবার করে শিরোপা জিতেছে।

তাই শিরোপা জেতার ইতিহাসে ততটা সফল নয় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ।

তবে ২০২০ সাল পর্যন্ত একটি শক্তিশালী দল হিসেবে নিয়মিত প্লে অফ খেলার সুযোগ পেত তারা।

সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বর্তমান পারফরমেন্সের ব্যাপারে বলতে গেলে বিগত তিন বছরে তাদের জয়ের ব্যাপারে বলতে হয়।

২০২১ সালের আইপিএল মৌসুমে সর্বমোট ১৪ ম্যাচ খেলেছে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ, যেখানে তারা মাত্র ৩ ম্যাচে জয় পেয়েছে এবং বাকি ১১ ম্যাচে হেরেছে। ২০২২ মৌসুমে ১৪টি ম্যাচের ৬টি ম্যাচে জয় পায় সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ দল, যেখানে বাকি ৮ ম্যাচে হেরেছে তারা।

সবশেষ আইপিএল ২০২৩ মৌসুমে ১৪টি ম্যাচের মাত্র ৪ ম্যাচে জয়ের দেখা পায় হায়দ্রাবাদ, বাকি ১০ ম্যাচে তারা হেরেছে।

শেষবার পয়েন্ট তালিকায় সবার শেষ অবস্থানে থাকা দল হায়দ্রাবাদ।

অর্থাৎ তিন মৌসুমের সর্বমোট ৪২ ম্যাচে মুখোমুখি হয়ে মাত্র ১৩ ম্যাচে জয় পেয়েছে তারা এবং হেরেছে ২৯ ম্যাচে।

যেটি একটি ফ্র্যাঞ্চাইজির জন্য বড় ব্যর্থতা।

পরবর্তী আসরে এই ব্যর্থতা থেকে মুক্তি পেতে নতুনভাবে কোচ হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে অভিজ্ঞ ড্যানিয়েল ভিত্তোরিকে।

এছাড়াও রজনীকান্তের বক্তব্য অনুযায়ী পরবর্তী মৌসুমে ভালো খেলোয়াড়দের পেছনেই বিনিয়োগ করতে দেখা যেতে পারে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ দলকে।

২০২৩ সালে দলের প্লেয়ার প্লানেলের দিকে তাকালেই বোঝা যায় সে মৌসুমে প্লেয়ার কেনার ক্ষেত্রে বুদ্ধির পরিচয় দিতে ব্যর্থ হয়েছে কাব্য মারান।

আর তাই দলের এই বিপর্যয়। এবার পরবর্তী আসরে তাদের নিলামে বুদ্ধির পরিচয় দিতে হবে।

রজনীকান্তের পরামর্শ সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ কে: ভালো খেলোয়াড়দের জন্য বিনিয়োগ কর

সাউথ ফ্লিমের জনপ্রিয় সুপারস্টার রজনীকান্ত, ক্রিকেট নিয়ে যার মধ্যে একটি ভালোবাসা দেখতে পাওয়া যায়। টিভিতে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদ দল যখন ক্রমেই তাদের সব ম্যাচে হারছিল, তখন দলের মালিক কাব্য মারানকে টিভিতে অনেকটাই হতাশ মুখে বসে থাকতে দেখা যাচ্ছিল।

নিজের দলের এমন হার যেন মেনে নিতে পারছেন না তিনি।

টিভিতে কাব্য মারানকে এমন হতাশ দেখে রজনীকান্ত চুপ করে থাকতে পারেননি।

বলেছেন দলে আরো অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের পেছনে বিনিয়োগ বৃদ্ধি করতে।

হায়দ্রাবাদের জন্য রজনীকান্তের এই উপদেশ ছিল অনেকটাই কার্যকরী।

ইতিমধ্যেই ড্যানিয়েল ভিত্তোরিকে নিয়োগ দিয়েছে তারা। এবার দেখার পালা খেলোয়াড় নিলামে কতটা কার্যকর হয় তাদের পরিকল্পনা।

আইপিএলে খেলোয়াড় বিনিয়োগের গুরুত্ব

একটি টুর্নামেন্ট জেতার জন্য দলের ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করা অত্যন্ত জরুরি একটি বিষয়। আর তাই দলে ধারাবাহিক পারফরম্যান্স করার মতো খেলোয়াড় থাকা অত্যাবশ্যক। এক্ষেত্রে খেলোয়াড় বিনিয়োগের গুরুত্ব অনেক।

এটি যেহেতু একটি ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ, এখানে অসংখ্য অভিজ্ঞ খেলোয়াড় বিভিন্ন দলের হয়ে খেলায় অংশ নিয়ে থাকে।

ফলে অন্যান্য দলের অভিজ্ঞ খেলোয়াড়দের সাথে খাপ খাইয়ে উঠার জন্য প্রয়োজন হবে অভিজ্ঞ খেলোয়াড়।

আর তাই অভিজ্ঞ প্লেয়ারদের পেছনে বিনিয়োগ করাটাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয়।

তবে ভালো খেলোয়াড় নাম দেখে বিনিয়োগ করা যুক্তিযুক্ত নয়।

সম্প্রতি সময়ে দলে প্রয়োজন বিশ্লেষণ এবং খেলোয়াড়ের সাম্প্রতিক ফর্ম বিশ্লেষণ করে সে অনুযায়ী খেলোয়াড়দের পেছনে বিনিয়োগ করতে হবে।

খেলোয়াড়দের পেছনে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে সবচেয়ে ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছেন কাব্য মারান।

যেটি নিয়ে অনেকেই অনেক সমলোচনা করেছেন। আসন্ন আইপিএল মৌসুমে দেখার পালা কি পরিকল্পনা নিয়ে মাঠে নামছেন তিনি।

উপসংহার

আজকের পর্বে রজনীকান্তের মন্তব্য এবং সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের বর্তমান পারফরম্যান্স নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা করেছি।

ক্রিকেট সম্পর্কে রজনীকান্তের এমন মন্তব্য কতটা যুক্তিযুক্ত সে ব্যাপারে আপনার অভিমত তুলে ধরুন।

একইসাথে সানরাইজার্স হায়দ্রাবাদের পরবর্তী পদক্ষেপ কি হওয়া উচিত জেতার ক্ষেত্রে সে ব্যাপারেও জানাতে পারেন আমাদের। নিয়মিত ক্রিকেট আপডেট পেতে সাথেই থাকুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *